Welcome to মাইজভান্ডারীদর্পন

Featured Post

হযরত সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ মাইজভাণ্ডারী ট্রাস্ট পরিচালিত দ্বীনি ও সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান সমূহ
হযরত সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ মাইজভাণ্ডারী ট্রাস্ট পরিচালিত দ্বীনি ও সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান সমূহ ১. মাইজভাণ্ডার রহমানিয়া মইনীয়া দরসে নেজামী মাদ্রাসা,মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফ,ফটিকছড়ি,চট্টগ্রাম। ২. মাইজভাণ্ডার রহমানিয়া মইনীয়া হেফজখানা ও এতিমখানা,মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফ,...
Read More ...


Comment

Comment here if you like this plugin.

Member Login

Sign Up Now!

Forgot Password !

New password will be e-mailed to you.

Powered by

শাহাদাতে কারবালা মাহফিলে হযরত সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আলহাসানী- বিপদে ধৈর্যধারণ,আল্লাহ ও রাসূলের (দ.) ওপর পূর্ণ ভরসা রাখাই শাহাদাতে কারবালার শিক্ষা

শাহাদাতে কারবালা মাহফিলে হযরত সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আলহাসানী-
বিপদে ধৈর্যধারণ,আল্লাহ ও রাসূলের (দ.) ওপর পূর্ণ ভরসা রাখাই শাহাদাতে কারবালার শিক্ষা

মাইজভাণ্ডার দরবার শরিফের সাজ্জাদানশীন আওলাদে রাসূল (দ.) শাহসূফি মাওলানা সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আলহাসানী (ম.জি.আ) বলেছেন,কঠিন বিপদে ধৈর্যধারণ এবং আল্লাহ ও রাসূলের (দ.) ওপর পূর্ণ ভরসা রেখে দ্বীন ও সত্যের ওপর সুদৃঢ় থাকার শিক্ষা পাই আমরা কারবালার মর্মন্তুদ ঘটনা থেকে। ইমাম হোসাইন (রা:) ও আহলে বায়তে রাসূল (দ.) নিজেদের মূল্যবান জীবন উৎসর্গীত করে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করে এটাই শিক্ষা দিয়ে গেছেন যে,কঠিন বিপদ মোকাবিলা করেই সর্বাবস্থায় দ্বীন ও ইসলামের ওপর সুদৃঢ় থাকতে হবে। তিনি বলেন,মুসলিম দেশগুলোতে আজও কারবালার ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটছে। সর্বত্র হানাহানি-সংঘাতের কারণে শান্তিপ্রিয় মানুষ আজ উদ্বিগ্ন ও উৎকণ্ঠিত। এই দুঃসহ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে শাশ্বত মুক্তির পথ আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আতের ওপর প্রতিষ্ঠিত থাকতে হবে। সূফিবাদী মাইজভাণ্ডারী দর্শন ও সুন্নিয়তে বিশ্বাসীরা সংঘাত-হানাহানি থেকে দূরে থেকে ইসলামের ন্যায়ভিত্তিক উদারবাদী আদর্শকে সমুন্নত রেখেছে বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন। আনজুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভাণ্ডারীয়া ঢাকা বাবুবাজার শাখার উদ্যোগে আরমানি টোলা কলেজ মাঠে আজ ৩ ডিসেম্বর আয়োজিত শাহাদাতে কারবালা মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হযরত সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আলহাসানী এ কথা বলেন। এতে সভাপতিত্ব করেন খলিফা হাজী মুহাম্মদ আফসার উদ্দিন। শাহাদাতে কারবালার তাৎপর্য নিয়ে মাহফিলে আলোচনায় অংশ নেন-মাওলানা নূরুল ইসলাম জামালপুরী,মাওলানা মুফতি বাকি বিল্লাহ আল আযহারী,মাওলানা রুহুল আমিন ভুইয়া চাঁদপুরী,মাওলানা খাজা বাহাউদ্দিন,খলিফা মুহাম্মদ শাহজাহান রামপুরী,খলিফা নেসার আহমদ,খলিফা মুহাম্মদ মনির হোসেন,মুহাম্মদ লিটন মিয়া,খলিফা মুহাম্মদ কামরুল হাসান,খলিফা মুহাম্মদ ফিরোজ মিয়া প্রমুখ। সালাত সালাম শেষে বিশ্বশান্তি ও অশান্তি-অরাজকতা থেকে পরিত্রাণে আল্লাহর রহমত কামনায় মুনাজাত পরিচালনা করেন শাহসূফি হযরত সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আলহাসানী (ম.জি.আ)। বহু দ্বীনদার সুন্নি জনতা মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন।

No Comments