জাগতিক ও পারলৌকিক কল্যাণ ও মুক্তির দিশারী মহানবী (দঃ) এর আগমন সৃষ্টিকুলের জন্য বিশেষ নিয়ামত-গাজীপুর জেলা ঈদ-এ মিলাদুন্নবী (দঃ) মাহফিল ও সুন্নী সম্মেলন সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ মাইজভান্ডারী ।

জাগতিক ও পারলৌকিক কল্যাণ ও মুক্তির দিশারী মহানবী (দঃ) এর আগমন সৃষ্টিকুলের জন্য বিশেষ নিয়ামত-গাজীপুর জেলা ঈদ-এ মিলাদুন্নবী (দঃ) মাহফিল ও সুন্নী সম্মেলন সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ মাইজভান্ডারী ।
০৮জানুয়ারী ২০১৩ মঙ্গলবার বাদ এশা হইতে সারারাত ব্যাপী“আনজুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভান্ডারীয়া”গাজীপুর জেলা শাখার উদ্যোগে পবিত্র ঈদ-এ মিলাদুন্নবী (দঃ) উপলক্ষ্যে গাজীপুর পৌরসভা রোডে আন্জুমানের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি এডভোকেট ওয়াজ উদ্দিন মিয়ার সভাপতিত্বে ও আন্জুমানের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মুহাম্মদ জালাল উদ্দিন এর সমন্ব^েয় ,ঈদে মিলাদুন্নবী (দঃ) মাহফিল ও সুন্নী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন আওলাদে রাসূল (দঃ),সাজ্জাদানশীন দরবার- এ গাউছুম আজম মাইজভান্ডারী হযরতুলহাজ্ব শাহ্ সূফী সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল-হাসানী ওয়াল-হোসাইনী মাইজভান্ডারী (মা: জি: আ:)। বিশেষ অতিথি ছিলেন এডভোকেট আলহাজ্ব আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এম পি, জাহিদ আহসান রাসেল এম পি, টঙ্গী পৌর মেয়র এডভোকেট আজমত উল¬¬াহ খান, গাজীপুর পৌর মেয়র মোঃ আবদুল করিম, গাজীপুর সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, বারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান খান মাইজভাণ্ডারী। বিশিষ্ট ওয়ায়েজীন ছিলেন আল¬¬ামা নূরুল ইসলাম জামালপুরী, মুফতী বাকী বিল¬¬াহ আযহারী, মাওলানা আতাউর রহমান মিরাজী, মাওলানা রুহুল আমিন ভূইয়া চাঁদপুরী, মাওলানা শেখ সাদী মুহাম্মদ আবদুল¬াহ, মাওলানা মুহাম্মদ হাসান, মাওলানা আখতারুজ্জামান গাজীপুরী।
প্রধান অতিথী তার বক্তব্যে বলেন- জাগতিক ও পারলৌকিক কল্যাণ ও মুক্তির দিশারী মহানবী (দঃ) এর আগমন সৃষ্টিকুলের জন্য বিশেষ নিয়ামত। ইতিহাস থেকে জানা যায় তিনিই মানব জাতিকে দান করে গেছেন মুক্তির সর্বোত্তম পন্থা ইসলাম যা মানবতাবাদী শান্তির ধর্ম। তাঁর আগমনে মুক্তি পেয়েছে সমস্ত সৃষ্ঠি। সমাজ রাষ্ট্র তথা বিশ্বকে শান্তিময় আবাস হিসাবে গড়তে হলে সমাজের প্রতিটি স্তরে আধুনিক ও বিজ্ঞানময় ইসলামের চর্চ্চা একান্ত জরুরী। ধর্মীয় গোড়ামীর কারনে সমাজ আজ অস্থির। ধর্মের নামে স্বীয় স্বার্থ হাসিল করার মানষে সন্ত্রাস,নৈরাজ্য ও জঙ্গীবাদী কার্যক্রমকে কোন অবস্থাতেই ইসলাম সমর্থন করে না বরং যারা এ ধরনের হীন কাজে লিপ্ত তারা মানবতা ও ইসলামের শত্র“। এই রবিউল আউয়াল মাসে ঈদ-এ মিলাদুন্নবী (দঃ) এর চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে সকলকে শান্তিময় রাষ্ট্র গঠনে এবং সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও জঙ্গীবাদ দমনে আন্তরিকতার সাথে কাজ করার মাধ্যমে ইসলামের সত্যিকারের চেতনা মানবতা এবং রাসুলে পাকের আদর্শকে সমুন্নত রাখার আহব্বান জানান।
জনাব আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এম পি বলেন-ওলী আউলিয়ার মাধ্যমে এদেশে ইসলাম প্রচার হয়েছে এবং তারা নবী করিম (সাঃ) এর প্রতিনিধি হিসাবে সমাজে শান্তিপূর্ন ভাবে সহঅবস্থানের বানী প্রচারের মাধ্যমে সম্প্রীতির যে মহান আদর্শ স্থাপন করে গেছেন তা থেকে আমাদের শিক্ষা গ্রহন করতে হবে।
জনাব জাহিদ আহসান রাসেল এম পি বলেন-ইসলাম দাড়িয়েই আছে শান্তির বার্তা নিয়ে। অশান্তি কোন অবস্থাতেই কাম্য নয়। রাসূলে পাক (সাঃ) যেভাবে এবং অলী আউলিয়ারা যেভাবে প্রেম ও ভালবাসার মাধ্যমে মানুষকে সত্য ও সুন্দরের পথে এনেছেন তা আমাদের সকলেরই অনুসরন করা নৈতিক দায়িত্ব।
অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খলিফা সাইফুল ইসলাম, গাজীপুর জেলা আন্জুমান সম্পাদক আবুল খায়ের মিয়া, খলিফা,মোঃ বশীর মিয়া মাইজভান্ডারী,অন্যান্য খলিফাবৃন্দ, আনজুমানের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ সহ কয়েক হাজার স্থানীয় জনগন ও ভক্ত আশেকানবৃন্দ।
পরিশেষে সম্মানিত প্রধান অতিথি গাজীপুরকে সিটি কর্পোরেশন ঘোষনা কবায় সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে এবং দুরুদ মিলাদ ও জিকিরের পর সকল বিশ্ববাসী, দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করে মোনাজাত করেন।

This entry was posted in Uncategorized. Bookmark the permalink.

No Comments