Welcome to মাইজভান্ডারীদর্পন

Featured Post

হযরত সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ মাইজভাণ্ডারী ট্রাস্ট পরিচালিত দ্বীনি ও সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান সমূহ
হযরত সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ মাইজভাণ্ডারী ট্রাস্ট পরিচালিত দ্বীনি ও সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান সমূহ ১. মাইজভাণ্ডার রহমানিয়া মইনীয়া দরসে নেজামী মাদ্রাসা,মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফ,ফটিকছড়ি,চট্টগ্রাম। ২. মাইজভাণ্ডার রহমানিয়া মইনীয়া হেফজখানা ও এতিমখানা,মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফ,...
Read More ...


Comment

Comment here if you like this plugin.

Member Login

Sign Up Now!

Forgot Password !

New password will be e-mailed to you.

Powered by

সাম্প্রতিক সংবাদ সমূহ

ইনসানে কামেল হতে হলে আউলিয়া কেরামদের সুন্নীয়ত ও তাসাউফ ভিত্তিক ত্বরীকত সাধনার বিকল্প নেইঃ- সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল্‌ হাসানী মাইজভান্ডারী (মাঃ জিঃ আঃ)।

২৮ ডিসেম্বর ২০১০ (মঙ্গলবার) বরিশাল জেলার গৌরনদী থানার টরকী বন্দর হাইস্কুল ময়দানে “আনজুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভান্ডারীয়া” এর নীয় শাখার উদ্যোগে মাননীয় সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট তালুকদার মোহাম্মদ ইউনুছ (বরিশাল-১) এর সভাপতিত্বে এক ওয়াজ মিলাদ ও জিকিরের মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন নবী করিম (দঃ) এর ৩০তম বংশধর হযরতুলহাজ্ব আল্লামা শাহসূফী মাওলানা সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল্‌-হাসানী ওয়াল্‌ হোসাইনী (মাঃ জিঃ আঃ) এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন নবী বংশের ৩১তম বংশধর সাজ্জাদানশীন মোন-াজেম দরবার-এ-গাউসুল আজম মাইজভান্ডারী আলহাজ্ব শাহসূফী মাওলানা সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্‌-হাসানী ওয়াল্‌ হোসাইনী মাইজভান্ডারী (মাঃ জিঃ আঃ)।
উক্ত মাহফিলে ওয়াজ করেন মুফতীয়ে আহলে সুন্নাহ্‌ আল্‌হাজ্ব মাওলানা নুরুল ইসলাম জামালপুরী আল্‌ মাইজভান্ডারী,মুফতী আল্লামা বাকী বিল্লাহ আযহারী আল্‌ মাইজভান্ডারী,খলিফায়ে গাউসুল আজম আল্‌হাজ্ব মাওলানা রুহুল আমিন ভুইয়া,চাঁদপুরী,মাওলানা আব্দুস সাত্তার আল্‌ মাইজভান্ডারী এবং অন্যান্যদের মধ্যে ছিলেন জনাব শাহ আলম খান,উপজেলা চেয়ারম্যান-গৌরনদী,খলিফায়ে গাউসুল আজম হাবিব সরদার প্রমুখ।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন- ইনসানে কামেল হতে হলে আত্নশুদ্ধির জন্য আউলিয়া কেরামদের সুন্নীয়ত ও তাসাউফ ভিত্তিক ত্বরিকত চর্চা একান- জরুরী। নবী (দঃ) ও অলি আউলিয়াদের প্রতি প্রেমের মাধ্যমেই পূর্নতা প্রাপ্তি সম্ভব। আউলিয়া কেরামগন ইসলামের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের বরদাস- করেননি। অলি আউলিয়াদের মাধ্যমেই এদেশে ইসলামের প্রচার ও প্রসার ঘটে। আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের অনুসারীগনই সুন্নীয়তের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং প্রকৃত ইসলামের পথ প্রদর্শক। তাই সকলকে তিনি নবী (দঃ) এর প্রতি প্রেম ও অলি আউলিয়াদের পথে চলার আহবান জানান।
বিশেষ অতিথি বলেন- শোহাদায়ে কারবালার পর হতে বর্তমান বিশ্বে মুসলমানগন দুটি ধারায় বিভক্ত। আওলাদে রাসুল (দঃ),অলি আউলিয়াগন,হক্কানী ওলাময়েকেরাম আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের অনুসারী গন হলেন হোসাইনী আদর্শের মুসলমান আর মোনাফিক,ফেতনা-ফ্যসাদে লিপ্ত,সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদে বিশ্বাসীরা হল এজিদি চরিত্রের মুসলমান। ঐসব নামধারী মুসলমানদের কাছ থেকে সরে এসে আউলিয়া কেরামদের পথ অনুস্বরন করার আহবান জানান।
সর্বশেষে দরুদ-সালাম ও জিকিরের পর প্রধান অতিথি আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দরবারে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন।

==========================
=========================================================

মহানবী (দঃ) এর জীবন আদর্শকে পরিপূর্ণরুপে
আকড়ে ধরেই শানি-ময় পৃথিবী গড়া সম্ভব।
–সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমেদ আল্‌ হাসানী মাইজভান্ডারী (মাঃ জিঃ আঃ)

৩০ ডিসেম্বর ২০১০ (বৃহস্পতিবার) শরীয়তপুর জেলার বিসিক মাঠে “আনজুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভান্ডারীয়া”র জেলা শাখার উদ্যোগে বিশিষ্ট বিশিষ্ট সমাজসেবক জনাব সি এম ওয়াস উদ্দিন এর সভাপতিত্বে এক ওয়াজ মিলাদ ও জিকিরের মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন নবী করিম (দঃ) এর ৩০তম বংশধর হযরতুলহাজ্ব আল্লামা শাহসূফী মাওলানা সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল্‌-হাসানী ওয়াল্‌ হোসাইনী (মাঃ জিঃ আঃ) এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন নবী বংশের ৩১তম বংশধর সাজ্জাদানশীন মোন-াজেম দরবার-এ-গাউসুল আজম মাইজভান্ডারী আলহাজ্ব শাহসূফী মাওলানা সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্‌-হাসানী ওয়াল্‌ হোসাইনী মাইজভান্ডারী (মাঃ জিঃ আঃ)।
উক্ত মাহফিলে ওয়াজ করেন মুফতীয়ে আহলে সুন্নাহ্‌ আল্‌হাজ্ব মাওলানা নুরুল ইসলাম জামালপুরী আল্‌ মাইজভান্ডারী,মুফতী আল্লামা বাকী বিল্লাহ আযহারী আল্‌ মাইজভান্ডারী,খলিফায়ে গাউসুল আজম আল্‌হাজ্ব মাওলানা রুহুল আমিন ভুইয়া,চাঁদপুরী,মাওলানা আব্দুস সাত্তার আল্‌ মাইজভান্ডারী এবং অন্যান্যদের মধ্যে ছিলেন খলিফায়ে গাউসুল আজম মিনহাজুল হক মাল,খলিফায়ে গাউসুল আজম খালেক চোকদার,শরীয়তপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল ফজল মাষ্টার শরীয়তপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান আব্দুর রব মুন্সী,পালং ইউ পি চেয়ারম্যান আতাউর রহমান খান গগন,,বিশিষ্ট আশেকান রুহুল আমিন,মকবুল হোসেন,আনিস উদ্দিন ফকির,আব্দুল হাই,আশ্রাফ আলী,মোঃ মোস-ফা,মোঃ মনির ও কুদ্দুস ব্যাপারী প্রমুখ।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন- বিশ্ব জগতের ত্রানকর্তা প্রিয় নবী (দঃ) এর শুভাগমনের মধ্য দিয়ে বিশ্ব মানবতার প্রকৃত শানি- ও মুক্তি এসেছে। সেই মহান নবী (দঃ) এর প্রতি শ্রদ্ধা ও সর্বোচ্চ ভালবাসার মাধ্যমে বিশ্ব কল্যানময় হতে পারে। বিশ্বকে শানি-ময় আবাস যোগ্য করতে হলে সবাইকে মহানবী (দঃ) জীবনাদর্শকে পরিপূর্ণ রুপে আকড়ে ধরতে হবে।
বিশেষ অতিথি বলেন- ইসলাম শানি-,সাম্য ও সহমর্মিতার অনুপম আদর্শ ধারন করে ইসলামে জঙ্গীবাদ বা সন্ত্রাসবাদের কোন স’ান নাই। ওহাবী,সালাফী সহ বিভিন্ন ভ্রান- মতবাদীদের ষড়যন্ত্রে ও অপপ্রচারে নবীজীর শিক্ষা থেকে সরে এসে কিছু সংখ্যাক মুসলমান বিপদগামী হয়েছে। আমাদের প্রিয় নবী (দঃ) বিদায় হজ্জের ভাষনে আল্‌ কোরআন এবং আহলে বায়াতে রাসুল (দঃ) কে আকড়ে ধরতে বলেছেন। তাই আওলাদে রাসুল (দঃ) ও অলি আউলিয়ার আদর্শে ঐক্যবদ্ধ থাকিলে সাধারন মুসলমান জনগোষ্টির গোমরাহ হওয়ার কোন সম্ভবনা নেই। তিনি নবী (দঃ),অলি আউলিয়া কেরামদের পথ অনুস্বরন করার আহবান জানান।
পর্রিশেষে দরুদ-সালাম ও জিকিরের পর প্রধান অতিথি আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের দরবারে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন।
———————————————————————————————————————————————–

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

ইসলামে জঙ্গীবাদ,সন্ত্রাসবাদ ও হানাহানির কোন স’ান নেই-
সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল্‌-হাসানী মাইজভান্ডারী।

১৩ জানুয়ারী ২০১১ বৃহস্পতিবার “আন্‌জুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভান্ডারীয়া’র কেন্দ্রীয় পরিষদ এর উদ্যোগে মিরপুর হযরত শাহ্‌ আলী বোগদাদী (রহঃ) এর মাজার শরীফ প্রাঙ্গনে বাদ মাগরিব বাৎসরিক পবিত্র ওয়াজ,মিলাদ ও জিকিরের মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
প্রধান অতিথি হিসেবে আলোচনায় অংশ নেন নবী (দঃ) এর ত্রিশতম বংশধর সাজ্জাদানশীন দরবার-এ গাউসুল আজম মাইজভান্ডারী আল্‌হাজ্ব শাহ্‌সূফী সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল্‌-হাসানী ওয়াল্‌ হোসাইনী মাইজভান্ডারী (মাঃ জিঃ আঃ) এবং মাহফিল উদ্বোধন করেন নবী (দঃ) এর একত্রিশতম বংশধর নায়েবে সাজ্জাদানশীন দরবার-এ গাউসুল আজম মাইজভান্ডারী আল্‌হাজ্ব শাহ্‌সূফী সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্‌-হাসানী ওয়াল্‌ হোসাইনী মাইজভান্ডারী (মাঃ জিঃ আঃ)।
প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন- ইসলামে জঙ্গীবাদ,সন্ত্রাসবাদ ও হানাহানির কোন স’ান নেই। বিশ্বকে শানি-ময় আবাস যোগ্য করতে হলে মহান স্রষ্টার নৈকট্য লাভের জন্য তাকওয়া অবলম্বনের মাধ্যমে সবাইকে মহানবী (দঃ) জীবনাদর্শ ও আউলিয়া কেরামের বাতলানো পথ পরিপূর্নরুপে আকড়ে ধরতে হবে।
উদ্বোধনী বক্তব্যে সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ বলেন-শানি-,সাম্য,সহমর্মিতা,দেশপ্রেম ও অসাম্পদায়িক সমপ্রীতির অনুপম আদর্শ শুধু ইসলামেই রয়েছে। অসামপ্রদায়িকতার বিমূর্ত প্রতীক মাইজভান্ডার দরবার শরীফ আজ সারা বিশ্বে বাবা মইনুদ্দীনের নেতৃত্বে ধর্ম নৈতিকতার ভিত্তিতে শানি- প্রতিষ্টার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি অসমপ্রদায়িক সমপ্রীতি নির্মানে নবী (দঃ),আওলাদে রাসূল (দঃ) ও অলী আউলিয়া কেরাম গনের প্রদর্শিত সুন্নীয়ত ও তাসাউফ ভিত্তিক ত্বরীকত সাধনার পথ অনুসরন করার আহবান জানান।
মাহফিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপসি’ত ছিলেন,জনাব মোঃ আসলামুল হক (আসলাম) (মাননীয় সংসদ সদস্য),জনাব কামাল আহমদ মজুমদার (মাননীয় সংসদ সদস্য),জনাব ইলিয়াস মোল্লাহ্‌ (মাননীয় সংসদ সদস্য),জনাব তালুকদার মোঃ তৌহিদ জং মুরাদ (মাননীয় সংসদ সদস্য),জনাব ডঃ আমিনুল ইসলাম (প্রফেসর দর্শন বিভাগ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়),জনাব ডঃ আ ন ম রইস উদ্দিন (প্রফেসর ইসলামিক ষ্টাডিজ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়),জনাব ডঃ আনিসুজ্জামান (প্রফেসর দর্শন বিভাগ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়) প্রমুখ।
পরিশেষে দরূদ-সালাম ও জিকিরের পর প্রধান অতিথি মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের দরবারে দেশের শানি–সমপ্রীতি ও ঐক্য কামনা করে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন।

সংবাদ প্রেরক
শাহ এস এম আকতারুজ্জামান আল্‌ মাইজভান্ডারী
মোবাইলঃ ০১৭ ১১ ৯৬ ০০ ৭০।
————————————————————————————————————————————————————————————

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

মহানবী (দঃ) এর আগমন সমগ্র বিশ্বের জন্য
শ্রেষ্ঠ নেয়ামত,রহমত ও অনুগ্রহ-
আল্লামা সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল্‌-হাসানী মাইজভান্ডারী

আন্‌জুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভান্ডারীয়ার ব্যবস্থাপনায় ১৬ ফেব্রুয়ারী বুধবার পবিত্র ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী (দঃ) উপলক্ষ্যে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন রমনা ঢাকায় বিশাল সমাবেশ ও বর্নাঢ্য জশ্‌নে জুলুসের আয়োজন করা হয়। এই বিশাল সমাবেশের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নবী বংশের ৩০ তম আওলাদ শাহ্‌ সূফী মাওলানা সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল্‌-হাসানী ওয়াল্‌ হোসাইনী মাইজভান্ডারী। সমাবেশের সভাপতিত্ব করেন আন্‌জুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভান্ডারীয়ার সভাপতি শাহজাদা সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ মাইজভান্ডারী। বিশেষ মেহমান হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় বন ও পরিবেশ প্রতিমন্ত্রী ডঃ হাসান মাহমুদ (এম পি),জাতীয সংসদের বিরোধী দলীয় চীফ হুইপ জয়নাল আবেদীন ফারুক (এম পি),বিশিষ্ট শিল্পপতি এম আলাউদ্দিন,টংগী পৌর মেয়র এ্যাডঃ মোঃ আজমতউল্লাহ,বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ আল্লামা নূরুল ইসলাম জামালপুরী,মাওলানা আব্দুর রহমান আল্‌ কাদরী,মাওলানা রুহুল আমিন ভুইয়াঁ চাদপুরী,মুফতী বাকি বিল্লাহ আল আযহারী,আনজুমানের কেন্দ্রীয় সম্পাদক আলমগীর খান,আলহাজ্ব মোঃ ইকবাল,কবীর চৌধুরী,এ্যাডঃ ওযাজউদ্দীন,এ্যাডঃ জালাল উদ্দিন প্রমুখ এবং তাঁরা রবিউল আউয়ালের তাৎপর্যের উপর বক্তব্য রখেন। প্রধান অতিথি সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ মাইজভান্ডারী তাঁর ভাষনে বলেন-“ পবিত্র ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী (দঃ) সমগ্র বিশ্বের জন্য অফুরন্ত শ্রেষ্ট নেয়ামত,রহমত ও অনুগ্রহ। বিশ্ববাসীকে যাবতীয় অবক্ষয় থেকে রক্ষা করতে পবিত্র ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী (দঃ) এর শিক্ষা দৈনন্দিন জীবনে অনুসরন ও অনুকরন করতে হবে। আন্‌জুমানের সভাপতি শাহজাদা সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ বলেন,বর্তমান অশান্ত পৃথিবীতে মহানবী (দঃ) এর আদর্শের অনুকরন অনুসরনের মাঝেই বিশ্ববাসীর মুক্তি নিহিত। রবিউল আউয়াল শান্তি ও ঐক্যের চেতনার উৎস। ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী (দঃ) এর চেতনাতেই রয়েছে সন্ত্রাস,জঙ্গীবাদ,হানাহানি,সামপ্রদায়িক অনৈক্য থেকে মুক্তি ও কল্যান। মহাসমাবেশ শেষে সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল্‌-হাসানী মাইজভান্ডারীর নেতৃত্বে হাজার হাজার ধর্মপ্রান মানুষ কলেমা খচিত রং বে-রংয়ের ব্যানার বিশ্ব ভ্রাতৃত্ব,শান্তি ও মুসলিম উম্মাহর ঐক্যের বানী সম্বলিত ফেস্টুন,প্লাকার্ড সহকারে আনন্দ শোভাযাত্রায় অংশগ্রহন করে। ঈদ-এ মিলাদুন্নবী (দঃ) উপলক্ষ্যে আশেকানগন স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচী পালন করে।
শোভাযাত্রাটি রাজধানীর প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে সমাবেশ স্থলে এসে মিলাদ মাহফিল,বিশ্ব উম্মাহর ঐক্য,সংহতি,শান্তি ও মানবতার কল্যান এবং দেশের অগ্রগতি,সমৃদ্ধি কামনা করে মহান আল্লাহর দরবারে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

সংবাদ প্রেরক
শাহ্‌ এস এম আক্তারুজ্জ